স্টাফ রিপোর্টারঃ কর্মস্থলে যোগদান করানোর দাবিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব), উপ-উপাচার্যসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিদের অবরুদ্ধ করেছে এডহকের নিয়োগ প্রাপ্তরা। যোগদানের দাবিতে আন্দোলনরত অধিকাংশই সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

সোমবার (৩১মে) সকাল থেকে ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয় নিয়োগপ্রাপ্ত ছাত্রলীগরা। বেলা ১১টার দিকে উপাচার্য সম্মেলন কক্ষে প্রসাশনের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিসহ ডিনদের সাথে বৈঠকে বসেন। সোয়া ১১টার দিকে নিয়োগপ্রাপ্তরা সম্মেলন কক্ষে প্রবেশ করেন এবং কর্মস্থলে পদায়নের দাবি জানান। এসময় ডিনরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে নিয়োগপ্রাপ্তরা উপাচার্যসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিদের অবরুদ্ধ করে রাখে।

এক পর্যায়ে প্রশাসনের শীর্ষব্যক্তিরা নিয়োগপ্রাপ্তদের কাছ থেকে সময় নিয়ে নিজেরা বৈঠক করেন। পরে দুপুর ১টায় ফের বেঠকে বসেন নিয়োগপ্রাপ্তদের সঙ্গে।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ও রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান সুমন বলেন, আমরা গত ৬ মে যোগদান করেছি। ক্যাম্পাস খোলায় আমরা নিজ দফতরে জয়েন্ট করতে এসেছি। কিন্তু রুটিন দায়িত্বে থাকা উপাচার্য নিয়ম বহির্ভূতভাবে যোগদানে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। যদিও তিনি বলছেন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়েছে কিন্তু তারা কোনো ডকুমেন্টস দেখাতে পারেন নি। তাই আমরা যোগদানের দাবিতে অবরোধ করেছি।

জানতে চাইলে রুটিন দায়িত্বে থাকা উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, নিয়োগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা ছিল। তার ওপর মন্ত্রণালয় এটিকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন। এই অবস্থায় পদায়ন করা সম্ভব নয়।

রাবিতে কর্মস্থলে পদায়নের দাবিতে ভিসিকে অবরুদ্ধ

ফেসবুক

পুরাতন খবর খুঁজুন

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১