হাজিরা ফাঁকি দিতে বায়োমেট্রিক মেশিন অচল করে দিল কর্মী

প্রকাশিত: 10:10 PM, January 17, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ

হাজিরা ফাঁকি দিতে বায়োমেট্রিক মেশিন অচল করে দিয়েছেন হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মী। এ ঘটনায় জড়িত পরিচ্ছনতাকর্মী মো. ফারুক মিয়াকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য থানায় অভিযোগও দিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ঘটেছে এ ঘটনা।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, বুধবার ভোর ৫টা ৫৭ মিনিটের দিকে একটি সিরিঞ্জের মাধ্যমে হাসপাতালের প্রশাসনিক ব্লকে স্থাপিত বায়োমেট্রিক মেশিনটিতে পানি ডুকিয়ে দেয় পরিচ্ছন্নতাকর্মী মো. ফারুক মিয়া। ৩ মিনিট সময়ের মধ্যে কাজ করে সটকে পড়েন তিনি। ঘটনাটি হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে।

মেশিনটি অচল হয়ে পড়লে হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হাজিরা দিতে ব্যর্থ হন। এর সপ্তাহখানেক আগেও মেশিনটি একবার অচল করা হয়। অফিস ফাঁকি দিতে অসৎ কর্মচারীদের একটি চক্র ফারুকের মাধ্যমে বায়োমেট্রিক মেশিনটি অচল করিয়েছে। রাত্রিকালীন ডিউটি শেষে ফেরার পথে ফারুক প্রশাসনিক ব্লকে ডুকে মেশিনটিতে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ দিয়ে পানি ডুকিয়ে দেয়।

হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক চিকিৎসক মো. শওকত হোসেন জানান, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে হাসপাতালে কর্মরতরা হাজিরা দেয়ার জন্য উপস্থিত হয়ে দেখতে পান মেশিনটি অচল। এর ভেতর থেকে পানির ফোঁটা পড়ছে। ভেতরেও পানি আছে বলে বুঝা যায়। পরে আমরা সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখি পরিচ্ছন্নতাকর্মী ফারুক সিরিঞ্জের মাধ্যমে এটিতে সকাল ৫টা ৫৭ মিনিট থেকে ৬টার মধ্যে পানি ডুকিয়েছে।

ওইদিনই পরিচ্ছনতাকর্মী মো. ফারুক মিয়াকে সরকারি সম্পদ নষ্ট করার অপরাধে সাময়িক বরখাস্ত করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।