বাংলাদেশকে ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক ও ১৫ হাজার হেডকভার দিল ভারত

প্রকাশিত: 4:40 PM, March 25, 2020

জাগ্রত বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে বন্ধু রাষ্ট্র ভারত। বাংলাদেশকে ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক ও ১৫ হাজার হেডকভার দিয়ে সহায়তা করেছে দেশটি।

এ মুহূর্তে করোনার কারণে পুরো পৃথিবী বিপর্যস্ত। ঠিক সেই সময় বাংলাদেশের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে ভারত। ভারত করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

ভারতের ‘প্রতিবেশী প্রথমে’ নীতির অংশ হিসেবে এবং কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধ করার জন্য একটি সমন্বিত আঞ্চলিক উদ্যোগ নিতে গত ১৫ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং অন্যান্য সার্ক নেতৃবৃন্দ একটি ভিডিও সম্মেলন করেন। এ অঞ্চলের প্রতি ভারতের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে বুধবার (২৫ মার্চ) দেশটি ৩০ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক এবং ১৫ হাজার হেডকভার বাংলাদেশ সরকারের কাছে সহায়তা হিসেবে হস্তান্তর করেছে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের কাছে এ সহায়তা হস্তান্তর করেন। এসব সামগ্রী কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়ক হবে বলে মনে করছেন তারা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণা অনুসারে প্রাথমিকভাবে ভারতের এক কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা নিয়ে কোভিড-১৯ জরুরি তহবিল গঠিত হয়। পরে বাংলাদেশ সরকারসহ সার্কের বিভিন্ন দেশ কোভিড-১৯ জরুরি তহবিলে অবদান রেখেছে।

সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণ এবং নিজেদের সেরা অনুশীলনগুলো বিনিময়ের জন্য ভারত ও বাংলাদেশের চিকিৎসক এবং অন্যান্য অংশীদারদের মধ্যে ভিডিও সম্মেলন পরিচালনা করার প্রস্তুতিও চলছে। বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে প্রতিকূল সময়ে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াতে প্রস্তুত ভারত। সার্কভুক্ত দেশগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে কোভিড-১৯ সংক্রমণে সৃষ্ট পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারবে বলে আশাবাদী ভারত।